chicken recipes for kids

শিশুর জন্য মুরগির মাংসর মজাদার রান্না

শিশুর জন্য মুরগির মাংসর মজাদার রান্না : রকমারি ধাঁচে চেনা চিকেনের অচেনা পদ, ৩ বছর+ শিশুকে বানিয়ে দিন সহজেই।

চিকেনের ঝোল, চিকেনের স্যুপ বা স্যান্ডউইচ—চিকেন বা মুরগির এই পদগুলো আমরা প্রায়ই ছোট শিশুকে বানিয়ে দিই। কেমন হয়, যদি আপনার রান্নাঘর থেকে মাঝে মাঝে কিছু বাহারি পদ বেরিয়ে আসে ওর জন্য?

শিশুর মন ভালো করা মুখরোচক খাবার মাঝে মাঝে বানিয়ে দিলে শুধু যে ওই আনন্দে লাফাবে তাই নয়, মায়ের আদরটাও বেড়ে যাবে বেশ কয়েকগুণ।

দেশি-বিদেশি রেসিপির ছাঁচে আমাদের চেনা চিকেনকে বদলে দেয়ার কিছু মন্ত্র ও রেসিপি। শুধু ছোট শিশু নয়, বাড়ির বড়রাও চেয়ে চেয়ে খাবে।

আজকের প্রতিবেদনে সাজানো হলো চিকেনের নানান পদ দিয়েই। যেমন আছে—ঘরোয়া চিকেন ফ্রায়েড রাইস, তেমনই খোঁজ পাবেন ব্যাং ব্যাং চিকেনের। আছে—চিকেন পকেট এবং মিনি সুয়ারমা রোলের মতো মুখরোচক ৬টি পদের খোঁজখবর।

১. ব্রেড চিকেন পকেটস

ছোট্ট ছোট্ট বড়ার মতো দেখতেই মুচমুচে খাবার। মুখে দিয়ে ভাঙলেই সুস্বাদু চিকেনের পুর। ছোট্ট শিশুর জন্মদিনের পার্টি হোক বা বিকেলের আবদার, জমে যাবে একদম!

কী কী লাগবে?
  • পাউরুটি।
  • বোনলেস চিকেনের টুকরো।
  • পাতিলেবুর রস।
  • সাদা তেল।
  • পেঁয়াজকুচি।
  • ধনেপাতা কুচি।
  • গোলমরিচ।
  • গ্রেট করা চিজ।
  • ডিম।
  • কর্নফ্লাওয়ার।
  • ময়দা।
  • ভাজবার জন্য তেল।
কীভাবে বানাবেন?
  • বোনলেস চিকেনের টুকরোগুলো নুন ও লেবুর রস মাখিয়ে ৩০ মিনিট রাখুন।
  • চুলায় পাত্র বসিয়ে তেল দিন। তেল গরম হলে চিকেনের টুকরোগুলো দিয়ে দিন।
  • ঢাকা দিয়ে দিয়ে একদম সেদ্ধ এবং লাল লাল করে ভেজে নিন।
  • এবার ওই চিকেনের টুকরোগুলো ছিঁড়ে একটা বড় পাত্রে নিন।
  • সাথে মেশান ধনেপাতা কুচি, পেঁয়াজ কুচি, গ্রেট করা চিজ ও গোলমরিচ।
  • ভালো করে মিক্স করুন।
  • এবার একটা পাউরুটি নিন। সাইড কেটে বাদ দিয়ে বেলনের সাহায্যে একটু চ্যাপ্টা করে বেলুন।
  • একটা পাউরুটি থেকে একটাই পকেট তৈরি হবে।
  • অন্যদিকে একটা বাটিতে ২ টেবিল চামচ ময়দা ও ১ টেবিল চামচ কর্নফ্লাওয়ার জলে গুলে মিহি ব্যাটার বানান।
  • পাউরুটি বেলা হয়ে গেলে ওর চারিধারে ওই ব্যাটারটা একটু করে লাগিয়ে দিন।
  • এবার চিকেনের পুরটা পাউরুটির মধ্যে দিয়ে ফ্লিপ করার মতো করে রুটির অন্যদিকটা দিয়ে চেপে চেপে বন্ধ করুন। পকেট তৈরি হয়ে যাবে।
  • এবার একটা পাত্রে ডিম, একটু নুন আর একটু কর্নফ্লাওয়ার দিয়ে ফেটিয়ে নিন। আরেক পাত্রে নিন ব্রেড ক্রাম্বস। যারা ডিম দিতে চান না, তারা ব্যাটার বানান ময়দা আর কর্নফ্লাওয়ার জলে গুলেই।
  • প্রথমে পকেটগুলো ডিমের ব্যাটারে ডুবিয়ে তার পরে ব্রেড ক্রাম্বস ভালো করে মাখান।
  • এবার ডিপ ফ্রাই করুন।
২. মিনি চিকেন সুয়ারমা রোল
কী কী লাগবে?
  • বোনলেস চিকেন ছোট ছোট টুকরোয় কাটা।
  • পাতিলেবুর রস ও খোসা গ্রেট করা।
  • ২ চা চামচ রসুন বাটা।
  • ১ চা চামচ জিরে গুঁড়ো, ২ চা চামচ ধনে গুঁড়ো।
  • ১ চা চামচ স্মোকড প্যাপরিকা।
  • গোলমরিচ।
  • অলিভ অয়েল।
  • পাতলা করে কাটা পেঁয়াজ।
  • সরু, লম্বা করে কাটা লেটুস।
  • পিটা ব্রেড।

সসের জন্য লাগছে :

  • দেড় কাপ দই, জল ঝরিয়ে নেওয়া।
  • ১ টেবিল চামচ লেবুর রস।
  • একটা রসুনের কোয়া গ্রেট করে নেওয়া।
  • গোলমরিচ।
  • একটা টম্যাটো কুচি।
  • পার্সলে পাতা কুচি।
কীভাবে বানাবেন?
  • একটা বড় পাত্রে বোনলেস চিকেনের টুকরো, অলিভ অয়েল, লেবুর খোসা গ্রেট, লেবুর রস, রসুন বাটা, জিরে, ধনে, প্যাপরিকা, গোলমরিচ—সব একসাথে মিশিয়ে ম্যারিনেড করে রাখুন।
  • জল ঝরানো দই, লেবুর রস, রসুন, পার্সলে পাতা কুচি, গোলমরিচ, নুন—সব ভালো করে মিশিয়ে রাখুন। এর পর ফ্রিজে রেখে দিন।
  • এবার একটা পাত্র চুলাই বসিয়ে অল্প তেল দিয়ে চিকেনগুলো ঢাকা দিয়ে দিয়ে রান্না করে নিন। শুকনো হয়ে এলে নামিয়ে নিন।
  • পিটা ব্রেডের ওপরে পেঁয়াজ, লেটুস, টম্যাটো, সস দিয়ে চিকেনগুলো শিশুর খাওয়ার উপযোগী করে ছিঁড়ে দিন।
  • রোলের মতো গুটিয়ে টুথপিক লাগিয়ে দিন।
৩. ব্যাং ব্যাং চিকেন

নামটা বেশ মজার। পদটাও বিদেশি। চিন্তা নেই, উপকরণের সামান্য হেরফের করে দেশি ধাঁচেই ফেলে দেওয়া যায় একে। এক ধরনের চিকেন স্যালাড হিসেবেও খেতে পারেন।

কী কী লাগবে?
  • চিকেন ব্রেস্ট সেদ্ধ করে ছিঁড়ে নেওয়া।
  • অল্প হোয়াইট ভিনিগার।
  • ছাঁচি পেঁয়াজ কুচিয়ে নেওয়া/ না-পেলে ব্যবহার করুন সাধারণ পেঁয়াজ।
  • গাজর, ক্যাপ্সিকাল, বেল পেপার একদম সরু সরু করে কাটা।
  • গোলমরিচ।
  • একটু চিনি।
  • একটু গোটা তিল।

সস বানাতে লাগবে :

  • ৩/৪ কাপ পিনাট বাটার।
  • ২ চা চামচ তিল তেল।
  • ৪ টে চা ঝাল মিষ্টি স্বাদের যে কোনো সস।
কীভাবে বানাবেন?
  • সস বানানোর উপকরণগুলি নিয়ে ভালো করে ফেটিয়ে নিন, এরপর একটা পরিষ্কার এয়ার টাইট পাত্রে ভরে রাখুন। তার কারণ, আপনি এটা পরেও ব্যবহার করতে পারবেন। ফ্রিজে রাখলে চলবে ১ সপ্তাহ।
  • একটা পাত্রে অল্প বাটার দিয়ে গাজর, ক্যাপ্সিকাম আর বেল পেপারগুলো ঢাকা দিয়ে সেদ্ধ করে নিন।
  • একটা পাত্রে ভিনিগার আর একটু চিনি নিয়ে ভালো করে ফেটান। এবার সবজিগুলো দিয়ে আরেকবার মিশিয়ে নিন।
  • এবার সেদ্ধ চিকেনের টুকরোগুলো দিয়ে ওপর থেকে সস আর কিছু তিল ছড়িয়ে দিন।
  • আরো মজাদার করতে একটা লেটুস পাতায় পরিবেশন করুন ব্যাং ব্যাং চিকেন।
৪. লেমন চিকেন অ্যান্ড রাইস

এই পদটি অনেকেই মাইক্রোওয়েভ ওভেনে করে থাকেন। সহজ করে একটা রেসিপি : এতে চুলাতেই (গ্যাসেই) আপনি এই মজাদার পদটি রান্না করতে পারবেন শিশুর উপযোগী করে।

কী কী লাগবে?
  • মুরগির মাংস ছোট ছোট টুকরো।
  • পাতিলেবুর রস।
  • একটু সোয়া সস।
  • আদা গ্রেট করা।
  • রসুন থেঁতো করে নেওয়া।
  • গোলমরিচ (বাচ্চা ঝাল না খেলে দেবেন না)।
  • অলিভ অয়েল বা বাটার।
  • বাসমতী চাল।
  • পাতিলেবুর খোসা গ্রেট করে নেওয়া।
  • স্বাদমতো নুন।
  • পরিমাণমতো জল।
কীভাবে বানাবেন?
  • একটা বড় পাত্রে চিকেন নিয়ে তাতে পাতিলেবুর রস, সোয়া সস, আদা, রসুন, গোলমরিচ, গ্রেট করা পাতিলেবুর খোসা, নুন মাখিয়ে ম্যারিনেড করে রাখুন ১-২ ঘণ্টা। রেফ্রিজারেটরে রেখে দিন, ফ্লেভার বদলে যাবে।
  • এবার একটা পাত্র চুলাই বসিয়ে তাতে অলিভ অয়েল বা বাটার লাগিয়ে দিন। চিকেনের টুকরোগুলো দিয়ে ঢাকা দিয়ে দিন।
  • ঢিমে আঁচে রান্না হতে দিন।
  • চিকেন থেকে জল বেরিয়ে নিজে নিজেই সেদ্ধ হতে শুরু করবে। মাঝেমধ্যে উল্টেপাল্টে দিন। মাঝখানে টেস্ট করে যদি মনে হয় শিশুর জন্য একটু মিষ্টি লাগবে, মিশিয়ে দিন অল্প চিনি।
  • চিকেন সেদ্ধ হয়ে গেলে যখন সামান্য রসালো থাকবে, সেই অবস্থায় নামিয়ে নিন।
  • অর্থাৎ চিকেন যেন পুরো ড্রাই না হয়ে যায়।
  • বাসমতী চাল ভালো করে ধুয়ে তাতে নুন, সাদা তেল একটু আর জল দিয়ে সেদ্ধ হতে দিন।
  • ৮০% মতো সেদ্ধ হয়ে গেলে ভাত নামিয়ে ফেন ঝরিয়ে নিন।
  • এবার একটা পাত্র গ্যাসে চাপিয়ে সামান্য বাটার মাখিয়ে দিন। ভাতটা দিন এবং তার ওপরে চিকেন এবং চিকেন রান্না হওয়ার সময় যেটুকু স্টক মাখামাখা হয়ে আছে সেটাও দিন। এর ওপর দিয়ে দিন আরেকটু ভাত। এবার ঢাকা দিয়ে দিন।
  • একদম ঢিমে আঁচে হবে ৫ মিনিট।
  • ব্যাস নামিয়ে নিন।
৫. চিকেন নাগেটস

ছোট্ট ছোট্ট মজাদার চিকেন নাগেটস হয়ে উঠতে পারে শিশুর প্রিয় স্নাক্স। চেয়ে খাবে বড়রাও।

কী কী লাগবে?
  • বোনলেস চিকেনের টুকরো (২৫০ গ্রাম)।
  • পাউরুটি ২টি।
  • দুধ।
  • নুন স্বাদমতো।
  • আদা, রসুন, জিরে বাটা।
  • সোয়া সস।
  • গোলমরিচ (ইচ্ছে হলে)।
  • কর্নফ্লাওয়ার।
  • ডিম।
  • ব্রেড ক্রাম্বস।
কীভাবে বানাবেন?
  • পাউরুটির সাইড কেটে নিয়ে টুকরো টুকরো করে দুধে ভিজিয়ে দিন ১০ মিনিট।
  • ব্লেন্ডারে বোনলেস চিকেনের টুকরোগুলো ও স্বাদমতো নুন নিয়ে একটা মিহি পেস্ট বানান।
  • এবার তার সাথেই ঢেলে দিন দুধে ভেজানো পাউরুটি।
  • দিন আদা, রসুন, জিরে বাটা, সোয়া সস, গোলমরিচ।
  • আবার সবকিছু একসাথে ব্লেনড করুন।
  • এবার ওই মিহি পেস্টটা একটা পাত্রে নিয়ে ২ টেবিল চামচ কর্নফ্লাওয়ার মিশিয়ে ভালো করে মেখে নিন।
  • রেফ্রিজারেটরে রেখে দিন আধা ঘণ্টা।
  • এবার একটা পাত্রে ডিম, একটু নুন আর একটু কর্নফ্লাওয়ার দিয়ে ফেটিয়ে নিন। আরেক পাত্রে নিন ব্রেড ক্রাম্বস।
  • এবার ফ্রিজ থেকে ওই মিশ্রণটা বার করে হাতে অল্প তেল মাখিয়ে গোল/ চৌকো—আপনার ইচ্ছেমতো আকারে নাগেট গড়ে নিন।
  • কড়াইয়ে তেল গরম হতে দিন।
  • একটা করে নাগেট নিন। প্রথমে ডিমের ব্যাটারে ডুবিয়ে তারপরে ব্রেড ক্রাম্বস ভালো করে মাখান। চপের মতো হবে।
  • এবার ডিপ ফ্রাই করুন।
  • পছন্দের যে কোনো সস বা ডিপ দিয়ে খেতে দিন।
৬. চিকেন ফ্রায়েড রাইস

বাহারি নামের অনেক কটা পদ হলো। এবার একটি সাধারণ পদ। চিকেন ফ্রায়েড রাইস হয়তো অনেকেই বানিয়ে থাকেন, তাও সবার জন্য রেসিপি রইলো আরেকবার।

কী কী লাগবে?
  • সেদ্ধ করা চিকেনের ছোট টুকরো।
  • বাসমতী চাল।
  • ৪টি রসুনের কোয়া, কুচিয়ে নেওয়া।
  • পেঁয়াজকুচি।
  • গাজরকুচি, মটরশুঁটি।
  • ডিম একটি।
  • একটু সোয়া সস।
  • নুন, চিনি স্বাদমতো।
কীভাবে বানাবেন?
  • বাসমতী চালটা ধুয়ে ৮০% মতো সেদ্ধ করে ফেন ঝরিয়ে রাখুন।
  • একটি বড় পাত্রে তেল গরম করে নিন। পেঁয়াজ ও রসুন দিয়ে নাড়ুন, কাঁচা ভাব যেন চলে যায়।
  • ছোট করে কাটা গাজর, মটরশুঁটি ও চিকেনগুলো দিয়ে দিন। ঢাকা দিয়ে একটু রান্না করুন। মিলিয়ে দিন নুন, চিনি।
  • এবার পুরো জিনিসটা পাত্রের একদিকে সরিয়ে দিন। অন্যদিকে ডিমটা ফেটিয়ে ঢেলে দিন। ডিমটা একটু ফ্রাই করে নিন।
  • এবার ওই সেদ্ধ চালটা দিয়ে দিন, সোয়া সস সিন এবং সবকিছু মিশিয়ে একসাথে একবার হাতা নেড়ে দিন।
  • বেশি ঘাঁটবেন না, তা হলে চাল ভেঙে যাবে। যতক্ষণ না সব মিলে গিয়ে একটা সুন্দর গন্ধ আসছে। ততক্ষণ রান্না করুন।
  • গরম গরম খেতে দিন।

অতএব, সময় করে সাধ্যের মধ্যে বানিয়ে ফেলুন এসব রকমারি ও মজাদার রেসিপি। ছোট শিশু খুশি, আপনিও খুশি—পরিবারের সকলে মিলে আনন্দে থাকুন। শুভ কামনা।

—ডেস্ক পেরেন্টিং

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *